“বাবা-রা তোমরা ঘরে ফিরে যাও। লেখাপড়ায় দাও মন”।
এই বলে জানান দেয় ওরা শিল্পী-আর্টিষ্ট-সেলিব্রেটি
অন্যায়-চাহিদা-দাবী আদায়ে প্রতিরোধ-অবরোধ হয়;
যদি আন্দোলন হয়, ওরা আওয়াজ তোলে শুধুই তখন।

তাক করা রাইফেল দেখে লেখা কবিতা মুছে
তুমি কবি – লিখলে সুবিধাভোগী-ক্ষমতাবানের চরণ।
অভিনয় করেই শিশুদের থেকে মুখ ফিরিয়ে
নিলে তুমি অভিনেতা-অভিনেত্রী, সেই একই ধরণ।
তোমার সাহিত্যে ঝরে চাটুকার, তুমি সাহিত্যিক –
তোমার বুকে আর জন্মে না কাবা-মন্দির-ত্রিপিটক।
গায়ক – চেনো না তুমি কাঁদানে গ্যাস, লাঠিচার্জ, অস্ত্রধারী
গেয়ে যাও জারজ শাসকের গান বিবেক বিক্রেতা তুমি।

তোমার বুকে কাঁপেনা শয়তান, বাঁচে – নিঃশ্বাস টানে প্রশান্তির।
তোমরা আর্টিষ্ট, জীবন তোমার সেলিব্রেটির – উন্মত্ত শিল্পীর।

মানুষ হতে না পেরে যারা হয়ে গেল সেলিব্রেটি আর্টিষ্ট –
শিল্পী, তোমরা নতুনের বুকের – শিশুদের পিঠের বোঝা।

স্বঘোষিত শিল্পী আর্টিষ্ট সেলিব্রেটি তোমরা শুয়োর সেবক
তোমরা শুয়োর কৃষক, তোমরা শুয়োর ধারক;
যে বুকে বাঁচে খোদা-ভগবান-ইশ্বর সেই বুকে মেরেছো লাথি
তোমরা শিল্পী, তোমরা আর্টিষ্ট, তোমরা চ্যাটের সেলিব্রেটি।

 

‘গুজব’ ২০১৮

© Shihab Shahariare Khan || developed by digibinary ||

Shahariare Khan Shihab